গুরুত্বপূর্ণ পরীক্ষা ছাড়া রক্ত পরিসঞ্চালন, মেয়াদোত্তীর্ণ রিএজেন্ট, সার্জিক্যাল সামগ্রী ও ওষুধ রাখাসহ বিভিন্ন অভিযোগে ধানমন্ডি এলাকার আনোয়ার খানসহ তিনটি হাসপাতালকে ২৭ লাখ টাকা জরিমানা করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশান ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) ভ্রাম্যমাণ আদালত।

বৃহস্পতিবার (০৬ সেপ্টেম্বর) র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারওয়ার আলমের নেতৃত্বে র‌্যাব-২ এ অাদালত পরিচালনা করে।

সারওয়ার আলম জানান, আনোয়ার খান হাসপাতালে অভিযান চালিয়ে প্যাথলজি ল্যাবে মেয়াদোত্তীর্ণ রিএজেন্ট, অপারেশন থিয়েটারে ২০১৫ সালে মেয়াদোত্তীর্ণ বেশ কিছু সার্জিক্যাল সামগ্রী পাওয়া গেছে। এ অপরাধে প্রতিষ্ঠানটিকে ৮ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়।

ধানমন্ডি জেনারেল অ্যান্ড কিডনি হাসপাতালে কোনো ধরনের অনুমতি ছাড়া ও বাধ্যতামূলক ৫টি সংক্রামক ব্যাধির নিরীক্ষা না করে রক্ত পরিসঞ্চালন করার প্রমাণ পাওয়া গেছে। এছাড়া, অপারেশন থিয়েটারে মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ ব্যবহার, প্যাথলজিস্টের জাল স্বাক্ষর, অতিরিক্ত ও ভূয়া বিল আদায়ের অপরাধে হাসপাতালটিকে ৯ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

এদিকে, প্যানোরমা জেনারেল হাসপাতালের অপারেশন থিয়েটারে প্রচুর পরিমাণ মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ, সার্জিক্যাল সামগ্রী ও স্যালাইন পাওয়া গেছে। অপারেশন থিয়েটারে মুড়ি, চানাচুর, চিনি, চা-কফি, চিংড়ি ও রসের মিষ্টি রাখা ছিল, যা একেবারেই অবিশ্বাস্য- এমনটাই জানান সারওয়ার আলম। প্যাথলজি টেস্ট রিপোর্টে একই প্যাথলজিস্টের নামে ৮ রকম স্বাক্ষর পাওয়া গেছে। এসব অপরাধে এ হাসপাতালটিকে ১০ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here