গাইবান্ধা প্রতিনিধি, শিকড় সন্ধানে : গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার শাখাহার ইউনিয়নের দামগাছী গ্রামে স্বর্ণা বেগম নামে এক গৃহবধূকে শ্বাসরুদ্ধ করে হত্যার অভিযোগ উঠেছে তার স্বামীর বিরুদ্ধে।

নিহত স্বর্ণা ওই গ্রামের সুমন মিয়ার স্ত্রী এবং বগুড়ার শিবগঞ্জ উপজেলার পদ্মপুকুর গ্রামের আব্দুস সোবাহানের মেয়ে।

অভিযুক্ত সুমন গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার দামগাছী গ্রামের মোনতাজ আলীর ছেলে।

নিহত স্বর্ণার বড় ভাই সুজাউল ইসলাম জানান, বছর ছয় আগে সুমনের সঙ্গে তার ছোট বোনের বিয়ে দেন। বিয়ের কিছুদিন পর থেকেই স্বামী নেশাগ্রস্ত হওয়ায় মাঝে মধ্যে ঝগড়া করায় একাধিকবার স্বর্ণা আমাদের বাড়িতে চলে আসে।

স্থানীয়রা জানান, সোমবার রাতে সুমন নেশা করে মধ্যরাতে বাড়ি ফিরলে তাদের মধ্যে বাক-বিতণ্ডা হয়। এরই এক পর্যায়ে স্বর্ণাকে মারপিটও করে। সকালে বাসায় কোন সাড়াশব্দ না পেয়ে জানালা খোলা দেখে ভেতরে উঁকি দিয়ে আমরা স্বর্ণার মৃতদেহ দেখতে পেয়ে থানায় খবর দিলে পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে।

পুলিশ জানায়, খবর পেয়ে মঙ্গলবার বিকালে ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

গোবিন্দগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মজিবুর রহমান শিকড় সন্ধানে’কে জানান, নিহতের গলাসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে জখমের চিহ্ন রয়েছে। ঘাতক স্বামীকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা করা হচ্ছে। নিহত স্বর্ণার বড় ভাই সুজাউল ইসলাম একটি হত্যার অভিযোগ করেছেন, মামলাটি গ্রহণের প্রস্ততি চলছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here