এস এম রুবেল মাহমুদ ঃ নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে জমি সংক্রান্ত বিরোধকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। সোমবার সকালে উপজেলার ব্রাহ্মন্দী ইউনিয়নের মারারদী গ্রামে এই সংঘষের ঘটনা ঘটে । এতে নারীসহ আহত হয়েছে অন্তত ১৮ জন।
পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, মায়ারদী গ্রামের সোয়া ৬ শতাংশ জমি নিয়ে দ্বীন মোহাম্মদ ও মহিবুরের পরিবারের মধ্যে বিরোধ চলছে। বিরোধ কে কেন্দ্র করে আদালতে মামলা মোকদ্দমাও হয়েছে। পুলিশ স্টেশন, ইউনিয়ন পরিষদসহ স্থানীয়ভাবে সালিস বৈঠক করেও কোন মিমাংসা করা যায়নি। সোমবার সকালে দ্বীন ইসলাম বিরোধপুর্ণ জমি দখল নিতে গেলে মহিবুরের লোকজন বাঁধা দেয়। বাঁধা দেয়ায় উভয় পক্ষের মধ্যে বাকবিতন্ডার এক পর্যায়ে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। পরে উভয় পক্ষ দেশিয় অস্ত্রসজ্জে সজ্জিত হয়ে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। এতে নারীসহ উভয় পক্ষের অন্তত ১৮ জন আহত হয়। আহতদের মধ্যে তোফাজ্জল, মাহবুব, রাকিবকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল এবং মহিবুর, বাদল, লেহাজউদ্দিন, সুরিয়া, সৃষ্টি, আজিজুল, লোকমান, মাসুম আবুল হাসান, নুসরাত জাহান, আলমগীরকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। বাকিদের স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।
দ্বীন ইসলামের ছেলে তোফাজ্জল হোসেন দাবী করেন, গ্রাম্য শালিসে সোয়া ৬ শতাংশ জমি তারা বুঝে নিতে নির্দেশ দেয়া হয়। তাই তারা জমিটি সোমবার সকালে তাদের দখলে নিতে গেলে মহিবুরের লোকজন বাঁধা সৃষ্টি করে। এমনকি দেশিয় ধারলো অস্ত্র দিয়ে তাদের লোকজনকে পিটিয়ে গুরতর আহত করে।
আহত মহিবুর রহমান জানান, স্থানীয় আব্দুল মজিদের কাছ থেকে সাড়ে ১৭ শতাংশ জমি ক্রয় করে দীর্ঘদিন যাবত ভোগ দখল করে আসছেন। গত বছর থেকে এ জমির সোয়া ছয় শতাংশ জমি নিজের বলে দাবী করলেও কোন সঠিক কাগজপত্র দেখাতে পারেনি দ্বীন ইসলাম। সোমবার সকালে হঠাৎ করে দ্বীন ইসলাম তার লোকজন নিয়ে জমি দখল করতে আসতে দেখলে লোকজন বাঁধা দেয়। পরে দ্বীন ইসলামের লোকজন দা, বটি, লাঠি দিয়ে পিটিয়ে তাদের লোকজনকে গুরতর জখম করে।
ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে আড়াইহাজার থানার ওসি (তদন্ত) শফিউল আলম জানান, এ ব্যপারে থানায় উভয় পক্ষ পাল্টা পাল্টি অভিযোগ দিয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here