স্টাফ রিপোর্টার, শিকড় সন্ধানে : আলোচিত নতুন ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বিষয়ে বিদেশি কূটনীতিকদের অবহিত করেছে সরকার। আজ রবিবার (১৪ অক্টোবর) পররাষ্ট্রমন্ত্রী এএইচ মাহমুদ আলী ও আইনমন্ত্রী আনিসুল হক রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় কূটনীতিকদের এ বিষয়ে জানান। সেখানে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মোহাম্মদ শাহরিয়ার আলম এবং পররাষ্ট্র সচিব এম শহীদুল হক উপস্থিত ছিলেন।
জানা গেছে, ওই বৈঠকে ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার রায়সহ সাম্প্রতিক রাজনৈতিক পরিস্থিতি সম্পর্কেও কূটনীতিকদের অবহিত করা হয়।
ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন নিয়ে পশ্চিমা কূটনীতিকদের উদ্বেগের বিষয়ে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক তাদের আশ্বস্ত করে বলেন, ‘এটি একটি চলমান প্রক্রিয়া এবং সব সময় পরিবর্তনের সুযোগ আছে।’
গত মাসে আইনটি নিয়ে ইউরোপীয় দেশগুলি এক যৌথ বিবৃতিতে তাদের উদ্বেগ জানায়।
পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, এই আইন কেন প্রয়োজন সেই বিষয়ে ব্যাখ্যা করা হয় কূটনীতিকদের।
বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ‘কয়েকটি দেশের উদ্বেগের বিষয়ে আইনমন্ত্রী বলেন, এই আইন সম্পাদক পরিষদ, সাংবাদিক ও কূটনীতিকদের সঙ্গে আলোচনা করে ঠিক করা হয়েছে।’
উল্লেখ্য, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ৯টি ধারা সংশোধনের দাবিতে আগামীকাল সোমবার মানববন্ধন করবে সম্পাদক পরিষদ। গতকাল শনিবার জাতীয় প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে পরিষদের পক্ষ থেকে বলা হয়, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ৮, ২১, ২৫, ২৮, ২৯, ৩১, ৩২, ৪৩ ও ৫৩ ধারা স্বাধীন সাংবাদিকতা ও মতপ্রকাশের স্বাধীনতাকে ভীষণভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করবে।
সম্পাদক পরিষদ কয়েক দিনের মধ্যে শুরু হতে যাওয়া বর্তমান সংসদের শেষ অধিবেশনে এ ধারাগুলো সংশোধনের দাবি জানিয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here