জি আর আরমান: বৃহস্পতিবার নারায়ণগঞ্জ অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ দ্বিতীয় আদালতের বিচারক শেখ রাজিয়া সুলতানা এ রায় দেন।

দণ্ডিত আব্দুর রহমান (৪৭) চাঁদপুর জেলার নুরুল ইসলাম ওরফে নুরু মাঝির ছেলে। রায় ঘোষণার সময় তিনি আদালতে অনুপস্থিত ছিলেন।

নারায়ণগঞ্জ আদালতের অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটর (এপিপি) আবদুস শাকের খান জানান, বন্দর উপজেলার নোয়ারদা এলাকার তাজুল ইসলামের স্ত্রী নিশা বেগম (৩২)। ২০০৫ সালে তাদের বিয়ে হয়। তাদের দুই সন্তান রয়েছে। স্বামী তাজুল ইসলাম বিদেশে থাকতেন।

মামলার বরাত দিয়ে এপিপি শাকের বলেন, স্বামী বিদেশে থাকার সুযোগে তাজুল ইসলামের ভগ্নিপতি আবদুর রহমান বিভিন্ন সময় নিশা বেগমকে উত্ত্যক্ত করত। পরে তাজুল ইসলাম বিষয়টি জানতে পেরে দেশে ফিরে এসে তাকে এ কাজ থেকে বিরত থাকতে বলেন এবং আবার চলে যান।

“২০১৪ সালের ৮ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় আবদুর রহমান কুপ্রস্তাব দেন নিশা বেগমকে। এ সময় নিশা বেগম চিৎকার দিলে আবদুর রহমান তার বুকে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যান।”

তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়া হলে ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় নিহতের ছোট ভাই রাব্বি মিয়া বাদী হয়ে বন্দর থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলায় ১২ জন সাক্ষী সাক্ষ্য দিয়েছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here